খবরসাইন্স ফিকশন মুভিসাইন্স-ফিকশন

Jurassic World (Criticism)

, February 25, 2019 WAT
Last Updated 2019-10-26T21:25:43Z
Advertisement

আসল প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন জুরাসিক পার্ক যে জায়গায় অবস্থিত ছিল...সেই জায়গায় কর্তৃপক্ষ জুরাসিক ওয়ার্ল্ড নামে আরেকটি নতুন থিম পার্ক তৈরি করে। যার মূল আকর্ষণ ছিল কিছু বৈচিত্র্যপূর্ণ প্রাণী...

 
খুঁটিনাটি
পরিচালক - কলিন ট্রেভোরো
প্রযোজক -
ফ্রাঙ্ক মার্শাল, প্যাট্রিক ক্রোলি
গল্প -
রিক জাফা, এমান্ডা সিলভার
চিত্রনাট্য -
রিক জাফা, এমান্ডা সিলভার, ডেরেক কোনোলি, কলিন ট্রেভোরো
ধরণ -
সাইন্স ফিকশন, এডভেঞ্চার
অভিনয় -
ক্রিস প্রেট, ব্রাইস ডালাস হাওয়ার্ড, টাই সিম্পকিন্স, নিক রবিনসন
মিউজিক -
মাইকেল গিয়াচিনো
সিনেমাটোগ্রাফি -
জন শোয়ার্জম্যান
সম্পাদনা -
কেভিন স্টিট
প্রোডাকশন কোম্পানি -
লিজেন্ডারি পিকচার্স, এম্বলিন এন্টারটেইনমেন্ট
পরিবেশনায় -
ইউনিভার্সাল পিকচার্স
মুক্তি - ১২ জুন, ২০১৫
রানিং টাইম - ১২৪ মিনিট
দেশ -
যুক্তরাষ্ট্র
ভাষা -
ইংরেজি
বাজেট - $১৫০ মিলিয়ন
বক্স অফিস -
$১.৬৭ বিলিয়ন


ভাল দিক - ক যুগেরও বেশি সময় পর জনপ্রিয় সিরিজ জুরাসিক পার্ক সবার সামনে নিয়ে আসার প্রচেষ্টা। ভাল কাহিনী, গতিময় চিত্রনাট্য, ক্যারেক্টার ডেভেলপমেন্ট সব মিলিয়ে একটি দারুণ মুভি...
 
খারাপ দিক -
ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক আরো ভাল হতে পারতো। তবে যতটুকু আছে তা যথেষ্ট...


 কাহিনী সারসংক্ষেপ - এই মুভির কাহিনী মূলত জুরাসিক পার্কে ঘটে যাওয়া ঘটনার ২২ বছর পর উদিত। বিজ্ঞানীরা কোস্টারিকার প্যাসিফিক কোস্টে অবস্থিত সেই একই কল্পিত ইসলা নুবলার নামক সেন্ট্রাল আমেরিকান দ্বীপে নতুন একটি জুরাসিক ওয়ার্ল্ড থিম পার্ক নির্মাণ করে। ডাইনোসর নিয়ে গবেষণাস্থল ছাড়াও এটি ছিল একটি পর্যটন কেন্দ্র। বিভিন্ন ক্লোনড ডাইনোসর ছাড়াও দর্শকের দৃষ্টিনন্দনের জন্য এখানে ছিল কিছু কৃত্রিম ডাইনোসর। ঘটনাক্রমে একটি জেনেটিক্যালি মডিফাইড হাইব্রিড ডাইনোসর এর ঘিরা থেকে পালিয়ে যায়। এটি ছিল দানবীয় আকৃতির মাংসাশী এবং খুব হিংস্র প্রকৃতির। এটি পার্কটিতে একের পর এক তাণ্ডব চালাতে থাকে এবং সব নষ্ট করে দিতে থাকে। এই ভয়ানক প্রাণীর বিনাশ কিভাবে হবে? শেষ পর্যন্ত জুরাসিক ওয়ার্ল্ড পার্কটি কি ধ্বংস হয়ে যাবে? জানতে হলে আপনাকে অবশ্যই দেখতে হবে এই মুভিটি...

Criticised by : Atiq Alam