সাইন্স ফিকশন মুভিসাইন্স-ফিকশন

Gravity: মহাকাশে বন্ধী দুই মহাকাশচারী, বেঁচে ফেরা কি সম্ভব পৃথিবীতে?

, October 21, 2019 WAT
Last Updated 2020-09-19T00:37:15Z
Advertisement

দুই মহাকাশচারী একটি দুর্ঘটনায় পড়ে মহাকাশে অসহায়ভাবে আটকে যাওয়ায় জীবিত থাকার জন্য একসঙ্গে কাজ করে



খুঁটিনাটি

পরিচালক - আলফোন্সো কুয়ারন 
প্রযোজক - আলফোন্সো কুয়ারন, ডেভিড হেইমেন 
গল্প ও চিত্রনাট্য - আলফোন্সো কুয়ারন, জোনাস কুয়ারন 
ধরণ - সাইন্স ফিকশন, থ্রিলার 
অভিনয়ে - স্যান্ড্রা বুলক, জর্জ ক্লুনি 
মিউজিক - স্টিভেন প্রাইস
সিনেমাটোগ্রাফি - ইমানুয়েল লুবেজকি
সম্পাদনা - আলফোন্সো কুয়ারন, মার্ক স্যাঙার 
প্রোডাকশন কোম্পানি - হেইডে ফিল্মস, এস্পারেন্তো ফিল্মোজ
পরিবেশনায় - ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্স 
মুক্তি - ৪ অক্টোবর, ২০১৩ (যুক্তরাষ্ট্র)
           ৭ নভেম্বর, ২০১৩ (যুক্তরাজ্য)


রানিং টাইম - ৯১ মিনিট 
দেশ - যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য 
ভাষা - ইংরেজি
বাজেট - $১৩০ মিলিয়ন
বক্স অফিস - $৭২৩ মিলিয়ন

ভাল দিক

অসাধারণ সিনেমাটোগ্রাফি, ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক, পরিচালনা, বুলকের অভিনয়, থ্রিডি ভিজুয়াল ইফেক্টের ব্যবহার...


খারাপ দিক
রানিং টাইম কিছুটা কম...


কাহিনী সারসংক্ষেপ

ড. রায়ান স্টোন, একজন অনুসন্ধানকারী এবং অনভিজ্ঞ বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার, মহাকাশে নাসা স্পেস শাটেলে তার প্রথম মিশনের জন্য প্রস্তুতি নেয়। তার সাথে থাকে দক্ষ মহাকাশচারী ম্যাট কোয়ালস্কি, যার জন্য এটি হতে যাচ্ছে অবসরে যাওয়ার আগে শেষ মিশন। কিন্তু তাদেরকে একটি অসাধ্য বিপর্যয়ের মুখোমুখি হতে হয়।

মহাকাশ পদচারনাকালীন সময় অপ্রত্যাশিতভাবে একটি অকেজো রাশিয়ান স্যাটেলাইট থেকে কিছু ধ্বংসাবশেষের ঝড় এসে আমেরিকান শাটেলটির বিধ্বস্ত ক্ষতি সাধন করে। এর ফলে স্টোন ও কোয়ালস্কি গভীর মহাকাশে আটকা পড়ে যায়। তারা সম্পূর্ণ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে অনিরাপদ ও অসহায় অবস্থার সম্মুখীন হয়।


কিন্তু সেখানে তাদের কাছে পর্যাপ্ত পরিমাণ অক্সিজেন ও জ্বালানি নেয়। এখন এই নির্জন কক্ষপথে চিরতরে বন্দী হওয়ার আগে তাদেরকে অবশ্যই পৃথিবীতে ফিরে যাওয়ার জন্য অসীম মহাশূন্যের সাথে লড়াই করতে হবে। তারা কি এটি সময়মত করতে পারবে? জানতে হলে আপনাকে অবশ্যই দেখতে হবে মাস্টারপিস এই মুভিটি...


লিখেছেন - আতিক আলম , সাইন্স-ফিকশন মুভি ক্রিটিকস