এডমিশন

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা ও লাখো শিক্ষার্থীর স্বপ্ন

, August 20, 2019 WAT
Last Updated 2019-10-26T21:25:33Z
Advertisement

ভর্তি পরীক্ষার সর্ব প্রথম পরীক্ষা হিসেবে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় প্রতিযোগিতা থাকে প্রচুর। এছাড়া ২য় বার দেওয়া পরিক্ষার্থীরাও থাকে। এখন কথা হল এত প্রতিযোগিতার ভিড়ে নিজের আসন কিভাবে নিশ্চিত করা যাবে?

৩টি ধাপ অনুসরণ করতে হবে।
  • অধ্যবসায়
  • মেইন বই
  • প্রচুর অনুশীলন


  • অধ্যবসায়

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অধ্যাবসায়।
.
সোজা বাংলায় আপনাকে প্রতিদিন পড়তে হবে। আজকে বেশি পড়লাম কালকে কম এটা হবে না । মেডিকেলে থিওরি ভিত্তিক প্রশ্ন হয় ৯০%, তাই আপনাকে ধৈর্য সহকারে প্রতিটা টপিক পড়তে
হবে।
.

  • মেইন বই

বাজারে দেখবেন হরেক রকমের এড আছে । অমুক অই
থেকে ৯৯% কমন এসেছে তমুক বই থেকে ১০০% কমন
এসেছে ! একটু থামেন। কমন হয়ত ঠিকই এসছে ,কিন্তু
একবার ভাবেন গাইড বইয়ে যে প্রশ্ন গুলা আছে সেগুলা কই থেকে নেওয়া হইছে? প্রত্যেক্টা প্রশ্ন মেইন বই থেকে
করা।তাহলে আপনি কেন শুধু শুধু গাইড বইয়ের হাজার হাজার প্রশ্ন পড়বেন? পড়বেন ভাল কথা, মনে রাখতে পারবেন কি সব?
এখানেই সমস্যা আপনি যখন মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা দিতে বসবেন তখন দেখবেন যে অধিকাংশই আপনার মনে পড়তেছে না ।বিশ্বাস করেন আজ পর্যন্ত মেডিকেলে যেসব প্রশ্ন করা হইছে তার সবই মেইন বই থেকেই করা। 

সযারদের হাতে ত আর
গাইড বই দেওয়া হয় না প্রশ্ন করার জন্য , তাদের হাতে একসেট
মেইন বই দেওয়া হয় প্রশ্ন করার জন্য। এখন কথা হল প্রতিটা বিষয়ের জন্যতো ৭-৮ টা রাইটারের বই থাকে ,তাহলে কিভাবে
পড়বেন? আপনি ভাল দেখে অন্তত২টা বই ফলো করুন ।
বইয়ের বোল্ড লাইন গুলা ভাল করে পড়ূন।পরে যদি মনে
করেন আপনার মেইন বই মোটামোটি শেষ তাহলে গাইড বই
দেখতে পারেন ।
.

  • অনুশীলন

৩য় ধাপ।আপনাকে প্রচুর অনুশীলন করতে হবে। কিভাবে করবেন? প্রথমে মার্কস ডিস্ট্রিবিউশন টা দেখা যাকঃ


  • জীববিজ্ঞান-৩০
  • রসায়ন-২৫
  • পদার্থবিজ্ঞান-২০
  • ইংলিশ-১৫
  • সাধারণ জ্ঞান-১০

যেভাবেই পড়ূন না কেন প্রতিদিন চেষ্টা করবেন অল্প করে
হলেও যেন ইংলিশ আর সাধারন জ্ঞান পড়া হয়।এই ২ বিষয়ের প্রতি সবাই বেখেয়াল থাকে কিন্তু এখানে কিন্তু ২৫ মার্কস থাকে যা পরীক্ষার চাকা ঘুরিয়ে দিতে সক্ষম।
পদার্থ মোটামোটি সহজ হয় , এইখানে সবাই ভাল কিছু মার্কস
তুলতে পারে। কনসেপচুয়াল বেশি আসে । গাণিতিক যেগুলা
আসে তা খুবই সহজ ১ সমীকরণের অংক।
রসায়নে কিছূটা ঝামেলা থাকে।যাদের বেসিক কনসেপ্ট ভালো তারা মোটামোটি ভালই করে। কিছু শর্টকার্ট নিয়ম জেনে রাখলে
ভাল । পরীক্ষায় কাজে দেয়। জীববিজ্ঞান এ প্রচুর পড়তে হয়। সংখ্যাভিত্তিক থেকে প্রতিবছরই কিছু না কিছু আসে।বোল্ড লাইন গুলো বারবার পড়তে
হবে।
আজকের মত এখানেই,
টানা তিনদিন ধরে পোস্ট করছি তেমন সাড়া পাচ্ছি না তোমাদের।
যাই হোক,তোমাদের কিছু বলার থাকলে কমেন্ট কর।
সর্বদাই চর্চা করব তোমাদের পাশে থাকার।
সবার জন্য রইলো শুভকামনা ♥♥♥
লিখেছেন - Robinur Rahman Khan
Udayan Dental College