এডমিশন

বুটেক্সের (BUTEX) ভর্তি যুদ্ধ নিয়ে যা জেনে রাখা দরকার

, August 11, 2019 WAT
Last Updated 2019-10-26T21:25:32Z
Advertisement

টেক্সটাইলে বাংলাদেশ আর বাংলাদেশে টেক্সটাইল দুইটা জিনিসই অনেক গুরুত্বপূর্ণ একে অপরের জন্য। সেই টেক্সটাইল সেক্টরের বাংলাদেশে তথা দক্ষিণ এশিয়ায় একমাত্র বিশ্ববিদ্যালয় "বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়"
২০১০ সালে বিশ্ববিদ্যালয় হওয়ার পূর্বে টেক্সটাইল কলেজ ছিল এটি। আর বিশ্ববিদ্যালয় হওয়ার পর দিন দিন বহু ছাত্র ছাত্রীর স্বপ্নের বিশ্ববিদ্যালয় হয়ে দাঁড়িয়েছে বুটেক্স।
বুটেক্সের ভর্তি যুদ্ধ নিয়েই আজকের পোস্ট...
.
বুটেক্সে মোট দুই মোট ৬০০ টি সিট আছে। মোট ৫ টি ফেকাল্টির আওতায় ১০টি ডিপার্টমেন্ট আছে। ডিপার্টমেন্টগুলো হলোঃ
1. Dept. of Yarn Engineering
2. Dept. of Fabric Engineering
3. Dept. of Wet Process Engineering
4. Dept. of Apparel Engineering
5. Dept. of Textile Engineering Management
6. Dept. of Textile Fashion & Design
7. Dept. of Industrial & Production Engineering
8. Dept. of Textile Machinery Design & Maintenance
9. Dept. of Dyes & Chemicals Engineering
10. Dept. of Environmental Science & engineering

এদের মধ্যে WPE,YE,FE,AE,TEM ডিপার্টেমেন্টে ৮০টি করে এবং বাকি ডিপার্টেমেন্টে ৪০টি করে আসন রয়েছে।
.

বুটেক্সের ভর্তি পরীক্ষায় প্রতিযোগিতা দিন দিন বেড়েই চলেছে। ৬০০ টি আসনের বিপরীতে গতবছর প্রায় ৭০০০ জন পরীক্ষা দিয়েছে। বুটেক্সের ভর্তি পরীক্ষা সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক। বুটেক্সে পরীক্ষা দেওয়ার জন্য একজন ছাত্রকে এস.এস.সি আর এইচ.এস.সি তে সর্বনিম্ন ৪.৫০ জিপিএ লাগবে।
ফিজিক্স কেমিস্ট্রি ম্যাথ আর ইংলিশে মোট ১৮ পয়েন্ট থাকতে হবে এবং এই চারটি বিষয়ে আলাদা আলাদা ভাবে মিনিমাম ৪ পয়েন্ট থাকতে হবে।
বুটেক্সে সেকেন্ড টাইম এক্সাম দেওয়ার সুযোগ নেই।
বুটেক্স ভর্তি পরীক্ষা হয় মোট ৩০০ নাম্বারে। যেখানে ১০০ হলো এস এস সি আর এইচ এস সি পরীক্ষার রেজাল্টের ভিত্তিতে নাম্বার আর ২০০ নাম্বারের একটি ভর্তি পরীক্ষা হয়। পরীক্ষা হবে সম্পূর্ণ লিখিত পদ্ধতিতে এবং সময় ২ ঘন্টা। পরীক্ষায় ক্যালকুলেটর ব্যবহার করা যাবে।কোন মডেলের ক্যালকুলেটর ব্যবহার যোগ্য তার লিস্ট দেওয়া হয় নাহলে প্রোগ্রামেবল ছাড়া সকল ক্যালকুলেটর ব্যবহার করা যাবে।
২০০ নাম্বারের ভর্তি পরীক্ষায় ফিজিক্স কেমিস্ট্রি আর ম্যাথে ১০ টি করে এবং ইংরেজীতে ২ টি মোট ৩২ টি প্রশ্ন থাকে। প্রতি প্রশ্নের মান ৬ নাম্বার করে। এখানে মাইনাস মার্কিং নেই। উল্লেখ্য যে,প্রতি প্রশ্নে ক,খ করে একটি বা দুইটি প্রশ্ন সংযুক্ত থাকতে পারে।
লিখিত পরীক্ষায় মেধাক্রম অনুসারে সর্বোচ্চ ৩০০০ জনের লিস্ট দেওয়া হয়।
এস.এস.সি আর এইচ.এস.সি এর জন্য বরাদ্ধকৃত নাম্বারের মধ্যে এস.এস.সি এর জন্য ৪০ নাম্বার (প্রাপ্ত জিপিএ*৮) এবং এইস.এস.সি এর জন্য ৬০ নাম্বার (প্রাপ্ত জিপিএ*১২)। জিপিএ চতুর্থ বিষয়সহ কাউন্ট হবে (According to 2018's circular)
.
যারা বুটেক্সকে স্বপ্নে রেখেছো তারা ভালোভাবে পড়াশুনা কর। জয় তোমাদেরই হবে ...
আরেকটি কথা, সার্কুলারে এইচ.এস.সি এর মিনিমাম পয়েন্ট রেজাল্টের উপর নির্ভর করে। রেজাল্ট সারাদেশে অনেক ভালো বা খারাপ হলে পয়েন্ট বেশী বা কম চাইতে পারে, তাই সার্কুলার পর্যন্ত নিজের স্বপ্নকে ধরে রেখো। আর কোন প্রশ্ন থাকলে করতে পারো।
বুটেক্স এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট - http://www.butex.edu.bd/
লিখেছে - মুমতাহিনা মীম
ইয়ার্ণ ইঞ্জিনিয়ারিং (৪৫ তম ব্যাচ)
বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়