গবেষণাজ্যোতির্বিজ্ঞাননভোপদার্থবিদ্যা

মহাজাগতিক প্রাণী (পর্ব - ২)

, May 03, 2019 WAT
Last Updated 2019-10-26T21:25:38Z
Advertisement
সিনেমায় দেখানো কাল্পনিক এলিয়েন চিত্র
বিস্তারিত গবেষণা শুরু হয় যখন, ১৯৭৫ সালে মাইকেন এইচ হার্ট এর ওপর একটি প্রবন্ধ প্রকাশ হয় যা ফার্মি - হার্ট হেঁয়ালি নামে ও পরিচিত। এই রকম আরো একটি আলোচিত বিষয় হল অসীম নিস্তব্ধতা - যদি ভ্রমন অপেক্ষাকৃত কঠিন হয়ও কিন্তু প্রাণ ত আছে! তবে কেন পৃথিবীর বাইরে আমরা কোনো বুদ্ধিমান প্রাণীর রেডিও ট্রান্সমিশন ধরতে পারিনি?
ফার্মি হয়ালি হল সে সকল সম্ভবতা ও প্রমানের অভাবের মধ্যকার দন্দ্বের ফলাফল এর পূর্ণসংজ্ঞ এভাবে দেওয়া যেতে পারে ;

" মহাবিশ্বের আকার এবং বৈশিষ্ট্যে র নির্দেশ করে বহু সংখ্যক উন্নত বহিজাগতিক প্রাণের সম্ভবনা উপস্থিত,


কিন্তু এই ধারণা অযুক্তিযুক্ত প্রতীয়মান হয়, কারণ পর্যবেক্ষণ গত ফলাফল তা সমর্থন করে না, " হেঁয়ালির ১ম বিষয়টি হল ;- আকারের যুক্তি, যার সাথে কিনা বিশাল সব সংখ্যা জড়িত। আকাশগঙ্গা ছায়াপথে "২৫৯ বিলিয়ন" এবং দৃশ্যমান মহাবিশ্বে "৭০ সেক্সটিলিয়ণ" তারকা আছে। যদি এসব তারার চার পাশে ঘূর্ণায়মান গ্রহ সমূহের অতি ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র অংশে ও যদি প্রাণের অস্তিত্ব থাকে। তবে আকাশগঙ্গা ছায়াপথে বিপুল সংখ্যক সভ্যতা থাকার সম্ভবনা রয়েছে। এই যুক্তিতে ধরে নেওয়া হয়েছে পৃথিবী কোনো বিশেষ গ্রহ নয় এবং এটি অন্যসব গ্রহের মত সাধারণ।
কাল্পনিক এলিয়েন চিত্র
১৯৫০ সালে লস আলেমাস ন্যাশনাল ল্যাবরেটরি দুপুরের খাবার খেতে যাবার সময় ফার্মি তার সহকারী দের সাথে আলাপ করছিল।তাদের আলাপের বিষয় ছিল সাম্প্রতিক সময়ে শোনা UFO সংস্ক্রান্ত খবর এবং এই নিয়ে অ্যালন ডানের ব্যাঙ্গচিত্র,যেখানে মজা করে মিউনিপ্যাচলের আর্বজনা বাক্র হারিয়ে যাওয়ার পেছনে এলিয়েন দের হাত আছে বলে দেখানো হয়। এরের তারা আরো গুরুত্ব পূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা পুরু করেন।মানুষ কি দশ বছরের মধ্যে আলোর চেয়ে বেশি বেগে চলমান কোনো বস্তু পর্যবেক্ষণ করতে
পারবে কিনা তার সম্ভাব্যতা...(চলবে)
- মহাজাগতিক প্রাণী (পর্ব -১)
লেখক - নাজমুল হাসান