খবরগল্পগোডাউন

মানিকনগর থেকে বুয়েট আসার পথে কথোপকথন

, March 18, 2019 WAT
Last Updated 2019-10-26T21:25:38Z
Advertisement

মানিকনগর থেকে বুয়েটের হলে ফিরছি ৷
রিকসা চালকের সাথে কথোপকথন....

মামা:
কৈ যাবে মামা?
আমি:
পলাশির মোড় ৷
মামা:
ঐ যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়; বুয়েট ঐ খানে তো?
আমি:
হ্যা ; কত?
মামা:
130 টাকা
আমি:
100 টাকা দিয়ে তো যায় ৷ 100 এর বেশি দিতে পারব না ৷
মামা:
আচ্ছা যা দিবেন তাতেই যাব ৷ আমার ঐ এলাকা খুব ভাল লাগে ৷
রিকসাতে উঠে কিছু দূর আসার পর
আমি:
আচ্ছা মামা ঐ এলাকা ভাল লাগার কারণ কি? বেশি ভাড়া নাকি এদিকের থেকে ৷
মামা:
আমার ছেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ত ৷
ও থাকা অবস্থাতে তো ঐ দিক যেতে পারতাম না ৷
এখন ও বিদেশে পড়াশোনা করে এখন ঐ এলাকাতে খুব ভাল লাগে আমার ৷
আমি:
আচ্ছা মামা উনি কোন কি নিয়ে পড়ত?
মামা:
ওষুধ নিয়ে পড়ত ৷
আমি:
ওষুধ মানে, আচ্ছা মামা এখন কৈ থাকেন উনি ?
মামা:
ও এখন বিদেশ থাকে , জাপানে অনেক পড়াশোনা করে ৷
ও অনেক ভাল পড়ালেখা করতো ৷
সারা দিন রাত পড়ত ৷
অনেক ভাল ভাল রেজাল্ট করেছিল ৷
ওর মা তো সারা দিন রাত ওকে নিয়ে বসে থাকত ৷
(আরো অনেক অনেক প্রশংসা করল,অর্ধেকটা সময় প্রশংসাতেই কেটে গেল)
আমি:
আচ্ছা মামা তাহলে একটা কথা বলেন আপনি তাহলে রিকসা এখন কেন চালান ৷
উনি চাইলে তো হাল ধরতে পারে ৷
এ বয়সে তো এগুলা আর লাগে না ৷
মামা:
আসলে আমার একটা ছেলে তে মামা, আর ওর সাথে তেমন কথাও হয় না ৷
আমি:
কথা হয় না কেন?
চুপ করেই রইল মাম আর কিছু বলছিল না ৷
4/5 মিনিট পর
মামা:
ও আসলে ওখানে গিয়ে নাকি বিয়ে করেছে ৷ তার পর থেকে তেমন একটা কথা হয়না ৷
অনেক দিন দেখিও না ৷
আমি:
ওহ আচ্ছা,মামা সবটা বুঝতে পেরেছি ৷
মামা:
হুম ৷
তবে সমস্যা হয় না তেমন এখনও অনেক শক্তি আছে টাকা রোজগার করে নিজেকে চালাতে পারি ৷
আমি:
আচ্ছা মামা, কে কে আছে তোমার পরিবারে?
বাড়ি কোথায়?
মামা:
আপাতত পরিবার বলতে আমি ৷ আর আমার ছেলে ৷
আমি:
ছেলে কি উনিই?
মামা:
হ্যা, আর ওর মা তো কিছু দিন আগে মারা গিয়েছে ৷
আমি:
আপনি কি মানিক নগরেই থাকেন?
মামা:
হ্যা এখানেই থাকি ৷
আমি পৌছে গিয়েছি হলে ৷
মামাকে টাকা দিয়ে মামার চেখের দিকে তাকিয়ে বাকিটা বুঝে নিলাম ৷
শুধু চোখ থেকে পানি টাই বের হয়নি হয়ত ৷
মামা:
এখানে সবাইকে দেখলে নিজের ছেলের কথা মনে হয় ৷
তাই এই এলাকা আমার ভাল লাগে ৷
আমি প্রায়ই এই এলাকাতে আসি.......
...(7:35 থেকে 8:16 পর্যন্ত রিকসাতে থেকে জীবনের কিছুটা দেখলাম).......
হাজার হাজার ঘটনা শুনেছি এমন ৷
টিভি নিউজেও দেখেছি ৷
পেপারেও পড়েছি ৷
তার পরও বাস্তবে এতটা ফিল করতে পারি নি কখনো যতটা আজ হলো......

লিখেছেন - হাসনাত রহমান, বুয়েট